২০১৯-০৩-১৫

মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯

দুই বছর ধরে হামলার পরিকল্পনা করে ব্রেন্টন ট্যারেন্ট

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: নিউজিল্যান্ডে হামলার পরিকল্পনা দুই বছরে ধরে করে আসছিল খ্রিস্টানজঙ্গী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। তার প্রাথমিক লক্ষ্যবস্তু ছিল ডানেডিনের কোনো মসজিদ। তবে মাত্র তিন মাস আগে হঠাৎ পরিল্পনায় পরিবর্তন আনে ট্যারেন্ট। শেষ পর্যন্ত শুক্রবার (১৫ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চের দু’টি মসজিদে হামলা চালায়।

এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ বলেন, হামলা ছিলো খুবই পরিকল্পিত। ঘটনাস্থলে আসার জন্য হামলাকারীর ব্যবহৃত গাড়ি থেকে দু’টি অত্যাধুনিক বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে, অন্যটি নিষ্ক্রিয়ের প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

২৮ বছর বয়সী ব্রেন্টন ২০০৯ সালের পর থেকে ব্যক্তিগত শরীর চর্চার প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করতো।

এদিকে হামলার ঘণ্টা কয়েক আগে নিজের ফেসবুক পোস্টে ৭৩ পৃষ্ঠার ম্যানিফেস্টো প্রকাশ করে ব্রেন্টন। ম্যানিফেস্টোতে সে তার ক্ষোভ, হামলার কারণ বর্ণনা করে।

২০১১ সালে নরওয়েতে গণহত্যাকারী আন্দ্রেস বেহেরিংয়ের হামলার ঘটনায় অনুপ্রাণিত হওয়ার কথা তুলে ধরে। নরওয়ের সে হামলায় অন্তত ৭৭ জন নিহত হয়েছিলো।

২০১৭ সালে সুইডেনের স্টকহোমের একটি সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা তার মধ্যে পরিবর্তন তৈরি করে বলেও ম্যানিফেস্টোতে উল্লেখ করে ব্রেন্টন।

উল্লেখ্য, আজ জুমার নামাজ আদায়ের আগে ক্রাইস্টচার্চের দু’টি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৪৯ জন শহীদ ও ৪৯ জন আহত হয়েছেন। আহতদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এএ