২০১৯-০২-১৮

বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯

নারায়ণগঞ্জে মসজিদ কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বে সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেফতার ২২

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (এনসিসি) ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় দুই কাউন্সিলরসহ ২২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর কবির হোসাইন ও প্রাক্তন কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্নাসহ ২২ জনকে সোমবার সকালে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

গতকাল রোববার মসজিদ কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বে নিতাইগঞ্জ নলুয়াপাড়া এলাকায় ওই সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন গুরুতর আহত হন।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম গ্রেপ্তারের তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, সোমবার ভোর ৪টায় কাউন্সিলর কবির ও প্রাক্তন কাউন্সিলর মুন্নাসহ ২২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গতকালের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে একে অপরের ওপর হামলা করে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। সংঘর্ষে মুন্না গ্রুপের হামলায় কাউন্সিলর কবির হোসাইনসহ কমপক্ষে ১০ জন মারাত্মক আহত হন।

এলাকাবাসী জানায়, স্থানীয় দক্ষিণ নলুয়া জামে মসজিদের কমিটি নিয়ে কাউন্সিলর কবির হোসাইন ও প্রাক্তন কাউন্সিলর মুন্নার মাঝে বিরোধ চলছিল। রোববার কাউন্সিলর কবির হোসাইনের ভাগিনা টিটু বর্তমান কমিটির কাছে হিসাব চাওয়ায় তাকে মারধর করে মসজিদ থেকে বের করে দেয় মুন্নাপন্থিরা।

এ ঘটনায় রাতে এক পক্ষ সদর থানায় অভিযোগ নিয়ে গেলে পুলিশ এলাকায় পৌঁছাতে না পৌঁছাতেই উভয় গ্রুপ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রাক্তন কাউন্সিলর মুন্নার লোকজন প্রথমে কাউন্সিলর কবিরের ওপর হামলা করে। এ সময় মুন্নার পক্ষের কয়েক যুবক ফাঁকা গুলি বর্ষণ করলে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এক পর্যায়ে কবিরের লোকজন খবর পেয়ে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে ঘটনাস্থলে আসলে সংঘর্ষ চরম আকার ধারণ করে। সংঘর্ষে কাউন্সিলর কবির, নেয়ামত উল্লাহ, সুজন, সত্যজিৎ ও দুর্জয়সহ ১০ জন রক্তাক্ত অবস্থায় জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন৷

আরআর