২০১৮-১২-১৪

সোমবার, ১৮ মার্চ ২০১৯

‘হামলা চালিয়ে ওরা সারাদেশে ভীতিকর পরিবেশে তৈরি করতে চায়’

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: ড. কামাল হোসেন এবং আসম রবসহ ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের গাড়িবহরে সন্ত্রাসী হামলা’র নিন্দা জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী।

আজ এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, মনোনয়পত্র দাখিলের পর থেকে সারা দেশে বিরোধী মতের উপর সরকারি দলের ক্যাডাররা লাগাতার সন্ত্রাসী হামলা চালাচ্ছে। ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থীদের প্রচারণার মাইক কেড়ে নিচ্ছে। নির্বাচনী অফিস ভেঙে দিচ্ছে। ব্যানার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে।

তিনি বলেন, পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদেরকে নির্বিচার গ্রেফতার করে জেলে পুরছে। এসব করে ক্ষমতাসীন দল সারা দেশে এমন এক ভীতিকর পরিবেশে তৈরি করতে চায়, যাতে প্রার্থীরা প্রচারণা চালাতে না পারে এবং ভোটাররা কেন্দ্রে যাওয়ার সাহস না পায়।

জমিয়ত মহাসচিব বলেন, এতদিন বিএনপি ও জোটের অন্যান্য শরীক দলের নেতাকর্মী ও প্রার্থীরা হামলার শিকার হয়েছেন। আজকে দেখা গেল, ড. কামাল হোসেনসহ ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারাও নিরাপদ নয় সরকারি দলের সন্ত্রাসী হামলা থেকে।

আল্লামা কাসেমী বলেন, ফ্যাসিবাদি শাসনের অবসানের লক্ষ্যে মতাদর্শের ঊর্ধ্বে উঠে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট গঠন করে সাংবিধানিক উপায়ে প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গড়ার উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু সরকার একে তাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের দুর্বলতা বলে মনে করছে।

তিনি বলেন, ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে পরিচালিত সকল ষড়যন্ত্র ও দমন-পীড়নের বিপরিতে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠায় এক ব্যালট বিপ্লব ঘটাতে হলে, আলেম-ওলামাসহ দেশের সকল মানুষকে এই দুঃশাসনের বিরুদ্ধে মাঠে নামতে হবে।

‘হয়রানি না করতে পুলিশকে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে’

আরআর