২০১৮-০৮-০৪

বুধবার, ২০ মার্চ ২০১৯

জাবালে নূরের চালকের মুক্তির দাবিতে আন্দোলনে পরিবহন শ্রমিকরা

OURISLAM24.COM
news-image

অাওয়ার ইসলাম: রাজধানীতে বাসচাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে ঘাতক বাস চালকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে দেশ যখন কাঁপছে, সেই সময় ‘জাবালে নূর’-এর সেই বাসের চালকসহ গ্রেফতার অন্যসবার মুক্তির দাবিতে আন্দেলনে নেমেছে পরিবহন শ্রমিকরা।

বিমানবন্দর সড়কে গত রোববার ওই দুর্ঘটনার পর দিন থেকে নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্র বিক্ষোভে যখন রাজধানী অচল প্রায়, পণ্য সরবরাহে ঘাটতিতে বেড়ে গেছে জিনিসপত্রের দাম, তখন শুক্রবার সন্ধ্যায় গাবতলী, সদরঘাট পর্যন্ত চলা বেড়িবাঁধ সড়কে অবরোধ করে পরিবহন শ্রমিকরা। তাদের দাবি ঘাতক সেই বাস চালকের মুক্তি এবং শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভাঙচুর করা গাড়ির ক্ষতিপূরণ।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে পরিবহন শ্রমিকরা গাবতলী থেকে সদরঘাট, মোহাম্মদপুর থেকে বেড়িবাঁধ হয়ে কেরানীগঞ্জমুখী সব রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এই সড়ক অবরোধ অংশ নেয় বাস, মিনি বাস, ট্রাক ও লেগুনা শ্রমিকরা এই কর্মসূচিতে অংশ নেয়।

পরিবহন শ্রমিকরা এসময় তাদের দাবি মানা না হলে অনির্দিষ্টকালের অবরোধে সমগ্র দেশ অচল করে দেওয়ারও হুমকি দেয়।

এদিকে দুর্ঘটনার জন্য দায়ী তিনটি বাসের চালক এবং দুইজন সহকারীকে গ্রেফতারের পর আদালতের আদেশে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে তাদের কঠোর শাস্তির বিষয়ে আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

এরই মধ্যে পূর্ব নির্ধারিক কোনো কর্মসূচি ছাড়াই শুক্রবার থেকে ঢাকা থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয় হয়। নগর পরিবহনও সকাল থেকে ছিল অস্বাভাবিক রকমের কম। পরিবহন মালিকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যে হারে তাদের বাস ভাঙচুর ও আগুন দেয়া হয়েছে, তাতে তারা নিরাপদ বোধ করছেন না। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বাস চালাবেন তারা।

সারাদিন বন্ধ থাকার পর রাতে অবশ্য দূরপাল্লার বাস চলতে শুরু করে।

আরও পড়ুন: হজের খবর নিয়ে ওয়েবসাইট চালু করলো সৌদি আরব

আরএম/