198180

শোকাহত আলেমদের স্রোত এখন আজগর আলীর দিকে


আওয়ার ইসলাম:
বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ এর সভাপতি ও চট্টগ্রাম মুঈনুল ইসলাম মাদরাসার মুহতামিম ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

আজ শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর আজগড় আলী হাসপাতালে সন্ধ্যা ৬:২০ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। বিষয়টি হাসপাতালে অবস্থানরত একাধিক সদস্য আওয়ার ইসলামকে নিশ্চিত করেছেন।

তাঁর মৃত্যুতে দেশের আলেমদের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। সারাদেশের ছাত্র-শিক্ষক ও তালিবুল ইলমরা কুরআন তেলাওয়াত, নামাজ, দোয়া ও আল্লামা শফির মাগফেরাত কামনায় মুনাজাত করছেন।

তাঁর মৃত্যুতে শোকে ভাঁসছেন আলেমসমাজ। শোকাহত আলেমদের স্রোত এখন আজগর আলী হাসপাতালের দিকে। এ স্রোতে দেশের উল্লেখযোগ্য আলেমদের রয়েছেন, যাত্রাবাড়ী মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মাওলানা মাহমুদুল হাসান, ফরিদাবাদের মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, মাওলানা নূরুল আমিন, রাহমানিয়া মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক,ইসলামিক ফাউণ্ডেশন এর সহকারী পরিচালক ড. মুশতাক আহমদ, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা আনাস মাদানিসহ আরও অনেক উলামায়ে কেরাম।

এর আগে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় হেফাজত ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকায় আনা হয়েছিল। এরপরই তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের আইসিইউতে থাকা আল্লামা শফীকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে শুক্রবার সন্ধ্যার আগে ঢাকায় এনে আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উল্লেখ্য, প্রায় শতবর্ষী আল্লামা আহমদ শফী দীর্ঘদিন যাবত বার্ধক্যজনিত দুর্বলতার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।

এমডব্লিউ/

ads