40668

রমজান মাসের বেজোড় রাতে সম্মিলিত ইবাদত জায়েজ আছে কি?

আওয়ার ইসলাম: রমজানের শেষ দশকের বেজোর রাত্রিতে সম্মিলিতে ইবাদাত করা জায়েয আছে কিনা কিংবা এর বৈধতা কতটুকু।

রাসুল (সা:) এবং সাহাবা রাজিয়াল্লাহু আনহুম আজমাইন এর জামানায় বেজোড় রাতে এমন কোন নির্দিষ্ট ইহতেমাম হতো কিনা।

উলামায়ে দীন এবং মুফতিয়ানে কেরাম এই মাসআলা সম্পর্কে কী বলেন? এই প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন দারুল উলুম দেওবন্দের মুফতিয়ে আজম আল্লামা মুফতি হাবিবুর রহমান খায়রাবাদি, দেওবন্দ, ভারত৷

তিনি বলেন, যদি কারো সত্যিকারে শবে কদর তালাশ করার নিয়ত থাকে তাহলে সে রমজান মাসের বেজোড় রাতসমুহে নিজের ঘরে একলা জেগে নফল ইবাদত কোরআন তেলোয়াত দোয়া এবং জিকির করবে৷

রমজান মাসের বেজোড় রাতে রাসুল সা. সাহাবা কেরাম রাজিয়াল্লাহ আনহুম, তাবেইন, তাবে তাবেইনের থেকে সম্মিলিত ইবাদত সাব্যস্ত নাই।

সুতারাং আমাদের কেউ এই সম্মিলিত ইবাদত নসীহাত, দোয়া থেকে দুরে থাকা ভালো! আর রমজানের মাস ইবাদতের মাস তাই আমাদেরকে সাহাবা কেরাম আজমাইনের মতো ইবাদত করা দরকার! নিজের মনগড়া খেয়ালে না হওয়া চাই৷

উত্তর সংগ্রহ করে পাঠিয়েছেন, মুনশি মুহাম্মাদ আবু দারদা যশোরী শিক্ষার্থী দারুল উলুম দেওবন্দ, ভারত৷

-এটি

ad