185048

ইন্দোনেশিয়ায় দারিদ্রতা দূরীকরণে ধনী-গরিবের মাঝে বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের আহ্বান

আওয়ার ইসলাম: দেশ থেকে দারিদ্রতা দূরীকরণে অভিনব এক কৌশলের প্রস্তাব করেছেন ইন্দোনেশিয়ার মানবউন্নয়ন ও সংস্কৃতিমন্ত্রী মুহাদির আফেন্দি। তার মতে, ধনী-গরিবের মাঝে অধিকহারে বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপনের মধ্যদিয়ে দারিদ্রতার মোকাবেলা করা সম্ভব! তার দেশের বিবাহোপযুক্ত ও পরিণয় সমর্থ যুবক-যুবতিদের এই কৌশল অবলম্বনের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। খবর ইয়েনি শাফাক আরবির।

বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) তুর্কি এই গণমাধ্যমটির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, ইন্দোনেশিয়ান ওই মন্ত্রীর দাবি, তার এই কৌশল দেশ থেকে দারিদ্রতা বিমোচনে নতুন মাইলফলক সৃষ্টি করতে পারে। তার মন্তব্য, ইন্দোনেশিয়া বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হলেও ‘ইসলামে বিবাহের ক্ষেত্রে সমতা’- এই বিধান দেশটির নাগরিকরা সঠিকভাবে বুঝতে সক্ষম হননি।

জাকার্তা পোস্টের বরাতে ইয়েনি শাফাক আরও জানায়, ইন্দোনেশিয়ায় অন্তত দেড়কোটি পরিবার অস্বচ্ছল। উল্লেখিত কৌশলমতে ধনী-গরিবের মধ্যে যদি অধিকহারে বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপন করা হয়, তাহলে উভয়শ্রেণীর মাঝে সামাজিক বৈষম্য হ্রাস পাবে এবং পারিবারিক ও আত্মীয়তার বন্ধন সুদৃঢ় হবে বলে মন্ত্রী মুহাদির আফেন্দি দাবি করেন। তিনি এই বিষয়ে দেশটির ধর্মমন্ত্রী ফাখরুর রাজিকে একটি ‘ফতোয়া’ দিতে অনুরোধ করেন।

বিশ্বব্যাংকের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ইন্দোনেশিয়ায় ২ শত ৬৭ মিলিয়ন মানুষের বসবাস রয়েছে- এদের মধ্যে অন্তত ১ শত ১৫ মিলিয়ন মানুষ অর্থনৈতিকভাবে মধ্যবিত্তের নিচে অবস্থান করছে।

ইয়েনি শাফাক আরবি অবলম্বনে বেলায়েত হুসাইন

-এএ

ad

পাঠকের মতামত


Notice: Theme without comments.php is deprecated since version 3.0.0 with no alternative available. Please include a comments.php template in your theme. in /home/ourislam24/public_html/wp-includes/functions.php on line 4805

Comments are closed.