138474

রেস্তোরাঁর বিলের অর্ধেক দেবেন না স্ত্রী, রাগে পুলিশ ডাকলেন স্বামী!

আওয়ার ইসলাম: দাম্পত্য কলহ তো ঘরে ঘরে হয় নিত্য। তবে এমন ঝগড়ার কথা কেউ শুনেছেন কখনও?

চটপট চাইনিজ খাওয়ার পরই শুরু হয়েছিল ঝগড়া। নিভু নিভু আলোয় চাইনিজ সিফুড রেস্তোরাঁয় রোম্যান্টিক ডিনার তো শেষ, এবার মোটা অঙ্কের টাকার বিলটা মেটাবে কে? সাধারণত স্বামীরাই উদারচিত্তে পকেট থেকে ওয়ালেট বের করে স্টাইলের সঙ্গে বিলের টাকা আর টিপস দিয়ে দেন ওয়েটারের হাতে, তবে এক্ষেত্রে তেমনটা হয়নি।

লাইফ পার্টনার যখন, তখন বিলের টাকার আধাআধি বখরা হওয়াই উচিত। এমনটাই ভেবেছিলেন স্বামী। কিন্তু স্ত্রী নারাজ। মুখ বেঁকিয়ে, হাত তুলে রীতিমতো বিদ্রোহ ঘোষণা করে দেন স্ত্রী। তবে ছাড়বার পাত্র নন স্বামীও। তিনি কী করলেন জানেন?

পকেট থেকে ফোন বের করে সোজা ডায়াল করলেন সিডনির পুলিশ কন্ট্রোল ‘০০০’ নম্বরে। বেশ রাগের সঙ্গেই পুলিশকে জানালেন, তার স্ত্রী বিলের টাকা দিতে রাজি নয়। অতএব স্ত্রীকে যেন গ্রেফতার করে পুলিশ!

অস্ট্রেলিয়ার জরুরি সেবার নম্বরে ফোন করে নানা রকম মশকরা আগেও অনেকবার হয়েছে। তাই এমন অভিযোগ শুনে পুলিশও খাপ্পা। বেশ ঝাঁঝিয়েই পুলিশ কর্তা উত্তর দেন, ‘কোনও গুরুতর অপরাধ বা প্রাণ সংশয়ের ঘটনা ঘটলেই পুলিশ কন্ট্রোলে ফোন করা যায়। দাম্পত্য কলহ মেটানো পুলিশের কাজ নয়।’

অস্ট্রেলিয়ান দম্পতির এমন ঝগড়ার কথা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। তাদের কীর্তিকলাপ দেখে হাসির রোল উঠেছে নেটিজেনদের মধ্যে। কেউ ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতির মোকাবিলা করার পরামর্শ দিয়েছেন, আবার কেউ জরুরি সেবার নম্বরে এমন অবিবেচকের মতো ফোন করার জন্য কড়া সমালোচনাও করেছেন। তবে সব কিছুর মধ্যে চাইনিজ রেস্তোরাঁর বিল শেষ পর্যন্ত কে মিটিয়েছেন, সেটা সম্ভবত উপরওয়ালাই জানেন। সূত্র– ইন্ডিয়া টাইমস ও দ্য ওয়াল ডটইন।

কেপি

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *