72687

মালদ্বীপে ভারতের সামরিক হস্তক্ষেপের আহবান সাবেক প্রেসিডেন্ট নাশিদের

আবরার আবদুল্লাহ
বিশেষ প্রতিবেদক

মালদ্বীপের রাজনৈতিক সংকট নিরসনে ভারতের হস্তক্ষেপ কামনা করলো দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ।

মালদ্বীপের বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন দেশটিতে ১৫ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করার পর নাশিদ এ আহবান জানালো।

নাশিদ বলেছেন, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে ভারতের উচিৎ সামরিক হস্তক্ষেপের মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ও সাবেক প্রেসিডেন্টকে মুক্ত করা। আমরা তাদের শারীরিক উপস্থিতি কামনা করছি।

দেশে জরুরি অবস্থা জারি করার পর তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ মাসের শুরুতে সুপ্রিম কোর্ট মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনকে অভিযুক্ত করা এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট নাশিদকে মুক্ত করার নির্দেশ দেয়ার পর দেশটিতে রাজনৈতিক অচলাবস্থা তৈরি হয়।

নাশিদ সুপ্রিম কোর্টের রায় প্রত্যাখান করেন এবং শাসন অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেন।

ইতিমধ্যে মালদ্বীপের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।

দেশ-বিদেশের অব্যাহত চাপের মধ্যে ইয়ামিন গতকাল সোমবার দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন। তিনি বলেন, জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে তিনি তা করছেন।

জরুরি অবস্থা জারি করার পরপর ইয়ামিন সুপ্রিম কোর্ট ভবনে সেনা প্রেরণ করেন। তারা প্রধান বিচারপতি আবদুল্লাহ সাঈদ, বিচারপতি আলি হামিদ ও সাবেক প্রেসিডেন্ট মামুন আবদুল গাইয়ুমকে গ্রেফতার করে।

নাশিদ ভারত ছাড়াও জাতিসংঘসহ বিশ্বশক্তির হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

উল্লেখ্য, মোহাম্মদ নাশিদ এখন প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কায় নির্বাসনে রয়েছে।

সূত্র : আল জাজিরা

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *